Search



Bajaj Pulsar NS160 12000km riding review by Riku Amir
2019-07-28 Views: 773
Owned for 1year+   []   Ridden for 10000km+


This user provides ratings about this bike


  7 out of 10
Design
Comfort & Control
Fuel Efficient
Service Experience
Value for money

This bike purchased from Bajaj Collection, Dhaka

বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল ১২০০০কিমি রাইডিং রিভিউ - রিকু আমির



Bajaj-Pulsar-NS160-12000km-riding-review-by-Riku-Amir

মোটর সাইকেল নিয়ে যেমনি এদিক ওদিন যখন তখন ছুটে চলা যায়, ঠিক তেমনি আমার স্বভাব, যখন তখন এদিক ওদিক ছুটে যাওয়া আমার অভ্যাস। সুতরাং মোটর সাইকেল আমার হৃদয়ের একটি অংশ হিসেবে স্থান করে নিয়েছে বহু আগ থেকেই। সময়ের সাথে সঙ্গতি রেখে সাধ্য অনুযায়ী চেষ্টা করেছি বেস্ট মোটর সাইকেল সংগ্রহের। এরই ধারাবাহিকতায় সংগ্রহের খাতায় নাম লিখাই বাজাজ পালসার এনএস ১৬০সিসি মোটর সাইকেলের।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে ঢাকার মোহাম্মদপুরস্থ বাজাজ কালেকশন থেকে গ্রে রং এর মোটর সাইকেলটি ক্রয় করি। যা এই জুলাই মাসের ১৫ তারিখ পর্যন্ত ১২হাজার কিলোমিটার চালিয়ে ফেলেছি। এই ব্যবহারের অভিজ্ঞতা নিয়েই আপনাদের সামনে লেখা নিয়ে হাজির হলাম আমি আমির হোসেন রিকু, পেশাগত পরিচয় সাংবাদিকতা, প্রতিষ্ঠান দৈনিক জাগরণ (www.jagaranbd.com)।


Bajaj-Pulsar-NS160-12000km-riding-review-by-Riku-Amir-Green

শুরুতেই বলে নিচ্ছি, এনএস ১৬০’র পূর্বে আমি সুজুকি জিক্সার ডুয়েল টোন ডাবল ডিস্ক (২০১৭ মডেল) ৭ হাজার কিলোমিটার চালিয়ে বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছিলাম ভয়াবহ যান্ত্রিক গোলযোগের জেরে। এই সম্পর্কে লেখা একটি রিভিউ মোটর সাইকেল ভ্যালিতে বেশ আগে প্রকাশিত হয়েছে। জিক্সার বিক্রয়ের পরে আমি খুব হতাশ হয়ে পড়ি। দ্বিধায় পড়ে যাই- কোন বাইক সংগ্রহ করব ভেবে। বহু ঘেঁটে, পড়াশোনা করে এনএস ১৬০ বাইকটি ক্রয় করি। তবে এনএস ব্যবহারকারী ছাড়া কারও কাছ থেকে এর বিষয়ে আমি ইতিবাচক সাড়া পাইনি। বলা যায়- অনেকটা একক সিদ্ধান্তে ভর করে বাইকটি ক্রয় করি। এনএস পছন্দের প্রধান কারণ- প্রথমত; অয়েল কুল্ড ইঞ্জিন, দ্বিতীয়ত; বলিষ্ঠ গঠন কৌশল তৃতীয়ত; পেরিমিটার ফ্রেম চেসিস চতুর্থত; থ্রটল রেসপন্স।







১২ হাজার চালানো এনএস আমাকে মোটর সাইকেল সম্পর্কে নতুন অভিজ্ঞতা দেয়। জিক্সার থেকে যে হতাশা সঞ্চার হয় মনে, তা পুরোপুরি দূর করে এনএস ১৬০। হোক সিটিতে, হোক মহাসড়কে- সবক্ষেত্রেই এনএস ১৬০’র সার্ভিস আমাকে মুগ্ধ করেছে।

বাইকটি ক্রয়ের পর ২ হাজার কিলোতে ব্রেক-ইন পিরিয়ড শেষ করি সফলভাবে। এরপর পুনরায় জাগিয়ে তুলি ভ্রমণের নেশা। জিক্সার দিয়ে শেষ ভ্রমণ করি সীতাকুণ্ডের কুমিরা ব্রিজে। এর দীর্ঘদিন পর এনএস নিয়ে ছুটে যাই কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে। আমি একক এবং ননস্টপ ভ্রমণ পছন্দ করি। কক্সবাজারে একা এবং অনেকটা ননস্টপ ভ্রমণ করি। এই ভ্রমণে এনএস আমাকে বাড়তি কিছু অনুভব দিয়েছে। যার মধ্যে প্রধান ইঞ্জিন পারফরম্যান্স। ঢাকা থেকে রওয়ানা দেবার সময় ইঞ্জিন যেমন শক্তি সরবরাহ করেছিল, ফেরার পথেও তেমন তালে শক্তি সরবরাহ করে। কখনই পাওয়ার ড্রপ করেনি। এটা পেয়েছি অয়েল কুল্ড সিস্টেমের কারণে। এজন্যই ক্রয়ের সময় বাজেট অনুযায়ী পছন্দের শীর্ষে রেখেছিলাম।

কক্সবাজারের পর নিজ জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কিশোরগঞ্জের মেন্দিপুর হাওর, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড, টাঙ্গাইল, রাজশাহী ও নাটোরে ভ্রমণ সম্পন্ন করি। প্রতিটি ভ্রমণই এনএস ১৬০ উপভোগ্য করে তুলেছে। ওভারটেকিং, হাইস্পিডিং, ব্রেকিং, মাইলেজ, কমফোর্ট- সবদিকেই অভিজ্ঞতা ছিল ইতিবাচক।

পেশাগত কারণে ঢাকায়ও যখন তখন এদিক-ওদিক ছুটে বেড়িয়েছি। এখানেও হতাশা আসেনি। মহাসড়কে প্রতি লিটার অকটেনে ৪২-৪৫, ঢাকায় প্রতি লিটার অকটেনে ৩৫-৩৭ কিলোমিটার মাইলেজ পেয়েছি। যা এখনও অব্যহত। সবসময় হাইরেইভ করলে মাইলেজ ২৮-৩২ এ নেমে আসে।

আপরাইড হ্যান্ডেল পজিশন হওয়ায় এটি সিটির অলিগলি, যানবাহনের ফাঁকফোঁকর দিয়ে বের হওয়া বেশ আরামদায়ক। এসব কাজে আন্ডারবেলি এগজস্ট পাইপও বেশ ভাল সাপোর্ট দিয়েছে।

এনএস ১৬০’র কালার, স্পেয়ার পার্টস কোয়ালিটি, স্টক হেডলাইট, স্পিডো মিটার, পার্কিং লাইট, ব্যাক লাইট, হেডলাইট শেইপ- সবকিছুই ভাল লেগেছে। তবে ইন্ডিকেটর লাইট এলইডি দেয়া প্রয়োজন ছিল।

থ্রটল রেসপন্সের কথা না বললেই হচ্ছে না। থ্রটল ঘুরালে মনে হয় আমার হাতভর্তি শক্তির পাহাড়, কেউ দাবায়ে রাখতে পারবে না, তা যত দীর্ঘপথই হোক না কেন। সামনের টেলিস্কোপিক ও পেছনের নাইট্রক্স গ্যাস মনোশক সাসপেনশনও যথেষ্ট উন্নত। বহু ভাঙাচোড়া পথ দিয়ে চলেছি, কিন্তু সে তুলনায় ঝাঁকুনি অনুল্লেখযোগ্য পরিমাণে অনুভূত হয়েছে। তবে সামনের টেলিস্কোপিক সাসপেনশন আরও মোটা হলে ভাল হতো।

এর সামনে ডিস্কব্রেক বেশ ভাল সাপোর্ট দিয়েছে। এ নিয়ে কোনো অভিযোগ নেই। পেছনের চাকায় ড্রাম ব্রেক দেয়া স্বত্বেও যে নৈপুণ্য পেয়েছি, তাতে আমি বিস্মিত। কখনও কখনও মনে হয়েছে ’আমি রিয়ার ডিস্কের মোটর সাইকেল চালাচ্ছি’। এ দুটি বিষয় এবং টায়ার যে পরিমাণ সাপোর্ট দেয়, তাতে এটি কন্ট্রোলে আনা অনেকটা সহজ মনে হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো স্কিডিং সমস্যা মোকাবিলা করতে হয়নি। কিন্তু হাই স্পিডে হার্ড ব্রেক করাটা কিছুটা ঝুঁকির। এর প্রধান কারণ পেছনের চাকা ১১০ সেকশনের দেয়ায়। যদি এটা ১৩০ সেকশনের দিতো, তাহলে কোনো টু শব্দের অভিযোগ বা আপত্তি আসত না।

পেরিমিটার ফ্রেম চেসিস এনএস ১৬০কে দিয়েছে বলিষ্ঠ এবং মজবুত গঠন। তবে এ কারণে এটি মেরামত করা বেশ ঝামেলার। ছোট খাটো কিছু কাজ, যেমন এয়ার ফিল্টার পরিবর্তন, ক্লাচ-এক্সিলারেটর ক্যাবল পরিবর্তনসহ আরও কিছু ছোট কাজ করতে গেলে ফুয়েল ট্যাংক খুলে ফেলতে হয়। যা বেশ অস্বস্ত্বিকর ও সময়সাপেক্ষ। এটা মেরামতের খরচও বাড়িয়ে দেয়। টুইন স্পার্ক প্লাগ পরিবর্তন বা পরিষ্কার করতে গেলেও ঝামেলা একটু বেশি, দুই পাশের বাম্পার খুলতে হয়।

কক্সবাজার একক ভ্রমণের সময় এনএস থেকে সর্বোচ্চ ১২৫ কিলোমিটার গতি পেয়েছি। এসময় রেডলাইন করে চালিয়েছিলাম। এর বেশি গতি আসতো, কিন্তু সামনে যাত্রীবাহী বাস থাকায় ঝুঁকি নেইনি। ৬০ কিলো থেকে ৮০ কিলোর সময় ও ১০০ কিলো এর উপরে পাদানিতে সামান্য ভাইব্রেশন অনুভব হয়। অবশ্য কয়েক সেকেন্ড পর তা থাকে না।

এর ব্যাটারি বেশ দুর্বল মনে হয়েছে। কেনার সময় এএইচও প্রযুক্তিতে চলত হেডলাইট। কিন্তু এক সপ্তাহের মাঝেই দেখি ব্যাটারিতে সমস্যা হচ্ছে। পরে এএইচও প্রযুক্তি বাদ দিই। এরপর অবস্থার আংশিক উন্নতি হয়। কিন্তু ব্যাটারিকে ফিটফাট করতে গিয়ে বহু সময় ব্যয় করতে হয়েছে।

১২ হাজার কিলোমিটারের মধ্যে সামনের ডিস্ক প্যাড একবার, চেইন সেটের সামনের স্পোকেট একবার এবং এয়ার ফিল্টার একবার পরিবর্তন করতে হয়েছে। প্রথম ৫ হাজার কিলো পর্যন্ত ২০ডব্লু ৫০ মিনারেল ইঞ্জিন অয়েল ব্যবহারের পর র্যাপসল ১০ডব্লু ৫০ ইঞ্জিন অয়েল ব্যবহার শুরু করি। যা এখনও চলমান। এতে পারফরম্যান্স সন্তোষজনক পাচ্ছি।

সার্ভিসিং এর ব্যাপারে আমি অনেক হতাশ। উত্তরা মটরস ঢাকা শহরে ব্যাঙের ছাতার মতো অনুমোদিত সার্ভিস সেন্টার করে রাখলেও সেসব সেন্টারের কারিগরদের কর্মকাণ্ড আমাকে বেশ বিব্রত করেছে। একটু সরলতা প্রকাশ করলে গোঁজামিল দিয়ে বিদায় করা, অহেতুক কাজ বাড়ানো, কাজে মনো সংযোগের অভাব এসব সেন্টারের স্বাভাবিক কর্মকাণ্ডে পরিণত হয়ে গেছে। কিন্তু টাকা নেবার বেলায় একশতে একশ। একটি সার্ভিস সেন্টার থেকে প্রথম পেইড সার্ভিস করিয়ে উল্টাপাল্টা ব্রেকপ্যাডের ব্যবহার আমাকে বেশ রাগান্বিত করে। আমার মনে হয়েছে- সেবাদানের ক্ষেত্রে উত্তরা মটরস সার্ভিস সেন্টারগুলোকে তদারক করে না। এনএস ১৬০ সম্পর্কে কারিগরদের জ্ঞানের অভাববোধ করি। দক্ষ কারিগর পাওয়া যায় না। তারা কাজ বোঝে না। ট্যাপেট অ্যাডজাস্ট, ভাল্ব ক্লিয়ারেন্স, কার্বুরেটর টিউনিং- এ অদক্ষতার মাত্রা বেশি। অবশ্য এর পেছনে আরেকটি কারণ আছে। সেটা হলো পেরিমিটার ফ্রেম চেসিস। এজন্য ভেতরে জায়গা অত্যন্ত কম, এর প্রভাবে ইঞ্জিনের হেড খোলা, সঠিক মাপ অনুযায়ী ট্যাপেট মিলানো, ভাল্ব ক্লিয়ারেন্স সঠিক করা বেশ জটিল।

এর বাম্পার দেখলে মনে হয়, যুগ যুগ ধরে রক্তশূন্যতায় আক্রান্ত একটি বস্তুকে দানবের পায়ের তলায় অবস্থিত শরণার্থী শিবিরে দয়া করে আশ্রয় দেয়া হয়েছে। মোটর সাইকেলটি চালাতে ভাল উচ্চতা প্রয়োজন। এক কথায়- ৫ ফুট ৬ ইঞ্জির উপর উচ্চতাবিশিষ্টদের জন্য এনএস। এটা মন্দ দিক।

বাইকের পার্টসের দাম মোটামুটি ঠিক আছে। কিন্তু পেতে কষ্ট। বাজাজের মোটর সাইকেল হিসেবে এই বিষয়টা বেশ কষ্টের।

অয়েল কুলিং এর জন্য ব্যবহৃত রেডিয়েটরের সম্মুখভাগ একদম খোলা। এর সম্মুখে একটি কভার দেয়া উচিৎ ছিল। ওয়াশের সময় খেয়াল রাখতে হয়, যেন পানির চাপ এখানে না পড়ে। যদি পড়ে তাহলে রেডিয়েটরের ভাঁজ নষ্ট হয়ে যায়। তাছাড়া রেডিয়েটরের সম্মুখভাগ খোলা থাকায় ধুলাবালি আটকায় বেশি।

সবমিলিয়ে এনএস ১৬০ এর প্রতি আমার সন্তুষ্টির পরিমাণ বেশি।

সবার বাইকিং জীবন নিরাপদ হোক, সার্টিফাইড ও ফুলফেস হেলমেট ব্যবহার করবেন, মোটর সাইকেলে উন্নত সিকিউরিটি সিস্টেম ব্যবহার করবেন।

ভুলত্রুটি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন, ভাল থাকবেন, খোদা হাফেজ।
Rate This Review

Is this review helpful?

Rate count: 12
Ratings:
Rate 1
Rate 2
Rate 3
Rate 4
Rate 5


More reviews on Bajaj Pulsar NS160
    27 Reviews found
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - মেহেদি হাসান সেতু
    2019-08-03
    আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তেমন বলার মত কিছু নেই কারন আমি এখনও একজন ছাত্র তবে বাইক এবং বাইক রাইডিং এর সৌখিনতা আমার মধ্যে প্রবল একথা আমি বলতেই পারি। বাইক কেনার কথা যখপনই চিন্তা করি বাজাজ পালসার এনএস১৬০ সবার আগে আমার পছন্দ তালিকার শীর্ষ স্থান দখল করে নেয়। আমি যখন বাড়িতে বাইক কেনার কথা বলি সাথে আমার পছন্দে...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল ১২০০০কিমি রাইডিং রিভিউ - রিকু আমির
    2019-07-28
    মোটর সাইকেল নিয়ে যেমনি এদিক ওদিন যখন তখন ছুটে চলা যায়, ঠিক তেমনি আমার স্বভাব, যখন তখন এদিক ওদিক ছুটে যাওয়া আমার অভ্যাস। সুতরাং মোটর সাইকেল আমার হৃদয়ের একটি অংশ হিসেবে স্থান করে নিয়েছে বহু আগ থেকেই। সময়ের সাথে সঙ্গতি রেখে সাধ্য অনুযায়ী চেষ্টা করেছি বেস্ট মোটর সাইকেল সংগ্রহের। এরই ধারাবাহিকতায় সংগ্রহে...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - শিমুল খান
    2019-07-22
    বাজাজ কোম্পানির মোটরসাইকেল আমার আগে থেকেই পছন্দ ছিল। তাই আমি মোটরসাইকেল কেনার সময় সরাসরি বাজাজের শোরুমে গিয়ে পালসার এন এস ১৬০ সিসির মোটরসাইকেলটি কিনি। মোটরসাইকেলটি যেদিন প্রথম শোরুমে আসে সেদিন থেকেই এটি কেনার প্রতি আমার আলাদা টান ছিল। এই মোটরসাইকেলটি কিনার উদ্দেশ্য হল এটির গ্রাফিক্স ডিজাইন সম্পূ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - আব্দুল গাফফার
    2019-03-29
    বাইক কেনার ইচ্ছা অনেক দিনের কিন্তু ব্যক্তিগত ও পারিবারিক ঝামেলার কারনে আতা কেনা সম্ভব হয় নি। অন্যদিকে আমি চাকুরী সাথে ব্যবসা দুটাই সামলায় আর এই কারনে একটি বাইক থাকা আমার কাছে ইনেক গুরুত্বপুর্ন হয়ে গিয়েছিল। বলে রাখা ভাল যে বাইকটা খুব দরকারী হলেও মনে মনে আমি সংকল্প রেখেছিলাম যে বাইক কিনলে ভালমানের বাই...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - আব্দুস শহিদ
    2019-03-23
    অনেক দিন থেকেই আমার খুব সখ ছিল বাজাজের ভালমানের একটি মোটরসাইকেল কেনার এবং আমার পছন্দের তালিকায় ছিল ৩টি মোটরসাইকেল। ১। বাজাজ এভেঞ্জার ১৫০ স্ট্রিট ২। বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ ৩। বাজাজ পালসার ১৫০সিসি যেকোন একটিকে খুজে বের করার জন্যে আমি মোটরাইকেলভ্যালীর ওয়েবসাইট খূব ভালোভাবে পর্যবেক্ষন করি একই সাথে ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - রাইহান রহমান
    2019-03-03
    আমি রাইহান রহমান বর্তমানে বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ সিসির বাইকটি ব্যবহার করছি। বাইকটি আমি সম্প্রতি কিনেছিলাম বাজাজ কালেকশান, মোহাম্মাদপুর, ঢাকা থেকে। কেনার পর এখন পর্যন্ত প্রায় ১৭০০ কিমি পথ পাড়ি দিয়ে ফেলেছি এবং আজকে আমি আমার অভিজ্ঞতা আপনাদের সামনে তুলে ধরবো। আসলে বাইকটা আমার অনেক আগে থেকে পছন্দ ছিলো এক...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - নুরুন নবী
    2019-02-26
    পড়াশোনা শেষ করে সবে মাত্র ব্যবসায় যোগদান করেছি। এই ব্যবসা পরিচালনা করার জন্য আমাকে অনেক দূর দূরান্তে যেতে হয় এবং দূর দূরান্তে যাওয়ার জন্য অন্য বাহন ব্যবহার করা একটু সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। তাই ঠিক করেছিলাম যে নিজের একটা বাইক থাকবে এবং আল্লাহর রহমতে আমি গত দুই সপ্তাহ আগে বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ এমকো বাজাজ ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - গোলাম রাব্বানী
    2019-02-19
    আমি গোলাম রাব্বানী বর্তমানে বাজাজ পালসার এনএস১৬০ বাইকটি ব্যবহার করছি। এই বাইকটি আমি সদ্য কিনেছিলাম রাব্বি এন্টারপ্রাইজ থেকে এবং বাজাজ পালসার এনএস১৬০ কেনার মুল কারণ হচ্ছে এর আউটলুক। বাইকটার আউটলুক সামনের দিক থেকে খুবই এগ্রেসিভ । আমি কোন বন্ধু বা কারো কথায় কান দিয়ে বাইকটা ক্রয় করিনি আমি ক্রয় করছি আম...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ ৮০০০কিমি রাইডিং রিভিউ - মুবাশশির
    2019-02-11
    বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ হচ্ছে একটি ভালোবাসার নাম। আমি আমার এনএস নিয়ে পূর্বেও রিভিউ দিয়েছিলাম এবং এখন আমার ওডমিটার ৮ হাজার কিলোমিটার ছুই ছুঁই তাই ভাবলাম এর পারফরমেন্স নিয়ে আবারো কিছু বলতে হয়। এজন্য আমি মোটরসাইকেলভ্যালিতে এসেছে আপনাদের সাথে এর ৮ হাজার রাইডিং অভিজ্ঞতা শেয়ার করবো বলে। আশা করি আমার রিভিউ ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - রিকু আমির
    2019-01-30
    বাইকার ভাইদের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি আমি রিকু আমির । বাইক প্রেমিদের কাছে বাইক স্বপ্নের মতো। অনেকেই তাদের স্বপ্নের বাইক নিয়ে ঘুরতে ভালোবাসেন। আমার ক্ষেত্রেও ঠিক তার ব্যাতিক্রম নয়। আমি বাইক চালাতে ভালোবাসি, যার ফলে এখন পর্যন্ত হোন্ডা সিজি ১২৫, রানার দুরন্ত ৮০ সিসি, , টিভিএস স্ট্রাইকার ১২৫, টিভিএস এপাচি আরট...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - এ এস এম আসিফ
    2019-01-10
    আমি এএসএম আসিফ, বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ নিয়ে আমি মোটরসাইকেলভ্যালীতে আমার প্রথম অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছিলাম। এই বাইকটি কিনেছিলাম এর স্টাইল ও লুক দেখে। বাংলাদেশের মোটরসাইকেল বাজারে এই রকম নেকেড স্পোর্টস লুকের বাইক সেই সময় খুব কম চোখে পড়ত তারপরে প্রথম বিবেচনা ছিলো এটা বাজাজের প্রডাক্ট। সব মিলিয়ে সিধান্ত নি...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস ১৬০সিসি ৫০০০কিমি রাইড রিভিউ - শাহরিয়ার রাব্বি
    2018-10-28
    আসসালামু আলাইকুম। আমি শাহারিয়ার রাব্বি।পালসার এন এস ১৬০ ইউজার।আমি আজকে আপনাদের সামনে তুলে ধরবো এন এস নিয়ে ৫০০০+ কিলোমিটার ব্যাবহার করার পরে আমার নিজের অভিজ্ঞতা। ইঞ্জিনের শব্দ- শুরুতে একবার রিভিও দিয়েছিলাম,তখন বলেছিলাম যে সাউন্ড নিয়ে আমি সন্তষ্ট নাহ।এখনও আমি সাউন্ড নিয়ে সন্তষ্ট নাহ।বাইক স্টার...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল ৩৫০০কিমি রাইড রিভিউ - আব্দুল্লাহ আল আসিফ
    2018-10-14
    বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ নিয়ে আমি মোটরসাইকেল ভ্যালীতে প্রথম রাইডিং অভিজ্ঞতা তুলে ধরেছিলাম। আজকে আমি তুলে ধরবো এর ৩৫০০ কিমি রাইডিং অভিজ্ঞতা। প্রথম প্রথম সব বাইকের প্রায় সব কিছু ভালো লাগে কিন্তু যতদিন যায় বাইকের পারফরমেন্স সহ সব কিছু বিষয়ের আসল রূপ বেরিয়ে আসে। ঠিক সেরকমই কিছু নিয়ে আজকে আমি আলোচনা করতে ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - মনিরুজ্জামান
    2018-09-08
    আমি মোঃ মনিরুজ্জামান সানি । আমি একজন ছাত্র,বর্তমানে পড়াশুনা অনার্স ৩য় বর্ষ চলছে। আমার বাসা রাজশাহীর কাদিরগঞ্জ এলাকায়। বাইক রাইড করতে কার না ভালো লাগে , খুব কম মানুষই পাওয়া যাবে যাদের বাইক রাইড করতে ভালো লাগে না । ঠিক সেভাবেই আমারও বাইক রাইড করতে ভলো লাগে । আমি বাইক চালানো শিখেছি হোন্ডা ১০০ সি সি বাইক দ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - ইবনে ফরহাদ
    2018-09-01
    বাজাজ বাংলাদেশে খুব জনপ্রিয় একটি মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড। শহরের পাকা রাস্তা থেকে শুরু করে গ্রামের মেঠো পথে বাজাজের বিভিন্ন মডেলের বাইক দেখতে পাওয়া যায়। বাজাজ কোম্পানী জনপ্রিয়তার কারণ হচ্ছে পারফরমেন্স এবং মাইলেজ। বহুদিন থেকে আমাদের দেশে বাজাজের একটা রেশ রয়েছে গেছে। আমরা যদি ভালো মাইলেজ সমৃদ্ধ বাইক খ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - শোভন
    2018-08-14
    এখনকার সময়ে মানুষ নিজেকে একধাপ এগিয়ে রাখছে। এখন মানুষ সূর্য দেখে সময় নির্ধারণ করেনা, ঘোড়ার পিঠে চড়ে যাতায়াত করেনা এখন অনেক পরিবর্তন এসেছে সেই সাথে পরিবর্তন এসেছে মটরসাইকেল বাজারে এখন কোম্পানি গুলো বেশ ভালো এবং উন্নত মানের মটরসাইকেল প্রবেস করছে বাজারে।অনেকে মটরসাইকেল ব্যাবহার করে সহজে যাতায়াত করা...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - সোহেল রানা
    2018-08-13
    বাংলাদেশে মোটরসাইকেল একটি জনপ্রিয় বাহন হিসেবে পরিচিত। এটির মাধ্যমে অল্প সময়ে দ্রুত যাতায়াত করা যায়। বিপদে আপদের সময়ও এটি সাহায্যকারী বাহন হিসেবে কাজ করে। এখন সবাইকে স্বাগত জানিয়ে আমার পরিচয় দিচ্ছি। আমি মোঃ সোহেল রানা। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। আমার মোটরসাইকেল এর নাম বাজাজ পালসার এন এস ১৬০ সিসি। আমা...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - এসএম আসিফ
    2018-06-28
    আসসালামু আলাইকুম, আমি এ এস এম আসিফ বর্তমানে পড়াশোনা করছি। আজকে আমি আপানদের সামনে আমার বর্তমান ব্যবহৃত বাইক বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ নিয়ে কিছু অভিজ্ঞতা শেয়ার করবো। আমার বাইক চালানোর হাতে খড়ি বাজাজ এক্সিডি বাইকটা দিয়ে। বাইক চালানো শেখার পর থেকে আমি বাইক প্রেমি হয়ে গেলাম এবং পর পর দুইটা বাইক এন এস কেনার আ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - আদিব হাসনাইন
    2018-06-06
    আমি আজকে হাজির হয়েছি আমার বাইক চালানোর অভিজ্ঞতা নিয়ে আমি আদিব হাসনাইন পেশায় একজন ছাত্র এবং আমি গত ১ মাস যাবত বাজাজ কোম্পানির ১৬০ সিসি সেগমেন্টের বাইক পালসার এনএস ১৬০ সিসির বাইকটি ব্যাবহার করছি।আমি যখন ৭ম শ্রেণীতে পড়ি সেই সময় আমার বাবা হোন্ডা কোম্পানির বাইকটি কিনে এবং এই বাইকে আমার হাতে খড়ি হয় এবং আমা...
    English Bangla
  • সহনীয় দামে আরামদায়ক বাইক – বাজাজ পালসার এনএস১৬০ ব্যবহারকারী মুবাশশির
    2018-05-30
    ডায়াং ৮০সিসি দিয়ে আমার বাইকের হাতে খড়ি এবং এটা দিয়েই বাইকিং এর পথ চলা শুরু। তারপর অনেক সময় কেটে গেলো এবং বাসায় বাইক কেনার জন্য ইচ্ছা পোষণ করলাম। যেহেতু বয়স কম তাই বাইক কেনাটা খুব কম মানুষই সম্মতি দিয়েছিলো কিন্তু আমি বাইক প্রেমি মানুষ এটাও বাসাতে জানতো। সব মিলিয়ে বাইক কেনার সিদ্ধান্ত হয় এবং বাইক খুঁজতে...
    English Bangla
  • বিনা দ্বিধায় বাজাজ পালসার এনএস১৬০ কিনতে পারেন - শাহারিয়ার রাব্বি
    2018-05-23
    আমি শাহারিয়ার রাব্বি বর্তমানে পড়াশোনা করছি, পড়াশোনার পাশাপাশি একটি জিনিস আমার খুব ভালো লাগে সেটি হলো বাইক। আমি এখন ব্যবহার করছি বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ এবং এর পূর্বে আমার বাইক ছিলো। বাজাজ পালসার এন এস ১৬০ কেনার মূল কারণ- ডিজাইন আপগ্রেডেশন এবং ১৬০ সিসি হওয়ার জন্য। ইনজিনের পারফরমেন্স আপাতত ভাল মনে হচ্...
    English Bangla
  • টায়ার সাইজ এবং ব্যাটারীর পারফরমেন্সে অসন্তুষ্ট - বাজাজ পালসার এনএস১৬০ ব্যবহারকারী আবদুল্লাহ আল আসিফ
    2018-05-21
    আমি মনে করি যে একমাত্র মোটরসাইকেলই হচ্ছে একটি বাহন যা চলার পথে অনাবিল আনন্দ দিতে পারে । ঠিক তেমনিভাবে আমার চলার পথ আরও সহজ ও উপভোগ্য করে তোলার জন্য মোটরসাইকেলকেই বেছে নেই। আমার নাম আবদুল্লাহ আল আসিফ মোটরেসাইকেল ভ্যালীর আমন্ত্রণে আমার বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ নিয়ে কিছু অভিজ্ঞতা তুলে ধরার চেষ্টা করবো। এ ...
    English Bangla
  • ইনজিন পারফরমেন্সে সন্তুষ্ট নই – বাজাজ পালসার এনএস ব্যবহারকারী জাওয়াদ ইসমাম
    2018-05-20
    যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য অনেক কিছুই আমাদের প্রয়োজন হয় তার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ একটি বাহন মটরসাইকেল।বর্তমানে মটরসাইকেল যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে অনেক সাহায্যকারি ভূমিকা পালন করছে। এই সময় অনেকেই বাইকের ওপর আকৃষ্ট হচ্ছে কারন বাইকের কারনে অনেক সহজে যাতায়াত করতে পারছে তার ফলে অনেক সময় বেঁচে যাচ্...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ রিভিউ - সাহাদত হোসেন
    2018-05-10
    বাংলাদেশের খুব জনপ্রিয় বাহন মটরসাইকেল। অল্প বয়স থেকে শুরু করে মাঝারি বয়সের সকলেই মটরসাইকেল চাই সহজেই যাতায়াত করার জন্য।অনেকই শখের জন্য বাইক ব্যাবহার করে। বর্তমান সময়ে বাইক এক যুগান্তকারী যাত্রার পথে আছে। অনেকেই এখন সময় বাঁচানোর জন্য বাইক বেছে নিচ্ছে এবং বিভিন্ন মানুষের বিভিন্ন রয়েছে বিভিন্ন রকম ...
    English Bangla
  • বাইকটি নিয়ে আমি সন্তুষ্ট – বাজাজ পালসার এনএস১৬০ ব্যবহারকারী সাব্বির শাওন
    2018-04-24
    প্রথমেই আমি বলতে চাই যে কি কি বাইক আমি ব্যবহার করেছি। আমি এপি পর্যন্ত ব্যবহার করেছি টিভিএস এপ্যাচি আরটিআর, সুজুকি জিক্সার এবং বর্তমানে বাজাজ পালসার এনএস ১৬০। আজকে আমি বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ নিয়ে এর গুনাগুন আপনাদের সাথে আলোচনা করবো তার আগে আমি নিজের পরিচয় দিয়ে ফেলি। আমার নাম সাব্বির শাওন বর্তমানে পড়াশ...
    English Bangla
  • বাজাজ পালসার এনএস১৬০ প্রথম ব্যবহারের অভিজ্ঞতা – আশিকুর রহমান তুহিন
    2018-03-01
    বাজাজ পালসার এনএস১৬০। বাইকটি যখন বাংলাদেশে আসবে বলে ঘোষণা করা হয় ঠিক তখন থেকেই মনে মনে ভাবলাম যে এই বাইকটা কিনবো কিন্তু কিছু কিছু বিষয় আমাকে অনেক পিছু টেনেছে কারণ । আমি শুনেছি যে বাজাজ পালসার এএস১৫০ বাইকটি বাংলাদেশে সেভাবে গ্রাহকরা গ্রহণ করতে পারেনি । টায়ার চিকণসহ বিভিন্ন কারণে বাইকটি অনেক সমালোচন...
    English Bangla
  • 2017-11-07
    সম্প্রতি বাংলাদেশে মোটরসাইকেলের সিসি লিমিট বৃদ্ধি করে ১৬৫সিসি করা হয়েছে। সিসি লিমিট বাড়ানোর সাথেই সাথেই নতুন নতুন বাইকগুলোর প্রবেশদ্বার উন্মুক্ত করে দিয়েছে। অন্যান্য ১৬০ সিসি বাইকের পাশাপাশি বাংলাদেশে যেসকল ১৬০ সিসি বাইক আসছে তাদের মধ্যে একটি হল বাজাজ পালসার এনএস ১৬০। এর পেছনে মূল কারণ হলো তাদে...
    English Bangla



Filter
Brand
CC
Mileage
Price

Advance Search
Motorcycle Brands in Bangladesh

View more Brands