Select your city
Search



TVS Apache RTR 160 user review by Tipu
2018-06-18 Views: 2634
Owned for 0-3months   []   Ridden for 1000-5000km


This user provides ratings about this bike


  8 out of 10
Design
Comfort & Control
Fuel Efficient
Service Experience
Value for money

টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - টিপু


TVS-Apache-RTR-160-user-review-by-Tipu

আমাদের নিত্য দিনের প্রয়োজনে এবং দ্রুত চলাচল করার জন্য মোটরসাইকেল একটি সহজলভ্য বাহন। এটি নিয়ে যাতায়াত করা অনেক সহজ। খুব অল্প সময়ের মধ্যে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাওয়া যায়। এজন্য বাংলাদেশে এটি একটি খুব জনপ্রিয় বাহন হিসেবে সকলের কাছে পরিচিত। তবে অনেকেই অনেক বছর ধরে মোটরসাইকেল চালায়। কিন্তু আমার নিজের মোটরসাইকেল চালানোর অভিজ্ঞতা মাত্র ৩ মাস। আমি আমার বন্ধুদের মোটরসাইকেলও অনেক চালিয়েছি। আমারও অনেক দিনের স্বপ্ন ছিল ভাল মানের একটি মোটরসাইকেল কিনার। একদিন হঠাৎ করেই “খান মোটরস, পুঠিয়া” শোরুমে যাই। সেখানে গিয়ে নতুন ব্যান্ডের মোটরসাইকেল গুলো দেখতেই "এপাচি আরটিআর ১৬০" সিসির মোটরসাইকেলটি চোখে পড়ে। এর ডিজাইন দেখেই আমি প্রথমে এটি পছন্দ করে ফেলি। এই মোটরসাইকেলটি দেখে আমার মনে হয়েছিল যে, আমার স্বপ্ন বুঝি এবার সত্যি হতে যাচ্ছে। আমি এর আগেও আশে পাশের শোরুমগুলোতে অনেক মোটরসাইকেল দেখেছি, কিন্তু কোনটাই আমার পছন্দ হয় নাই। তাই এবার আমি খুব তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত নিই যে, মোটরসাইকেল যদি কিনি তবে এই মোটরসাইলটিই কিনবো। পরের দিন এসেই আমি এপাচি আর টি আর – ১৬০ সিসি মোটরসাইকেলটি নিয়ে বাসায় যাই। তবে আমি আরেকটি দিক দিক বিবেচনা করে এই মোটরসাইকেলটি কিনেছি। সেই বিষয়টি হলো অন্যান্য ১৬০ সিসির মোটরসাইকেল হিসেবে এই মোটরসাইকেলটির দাম অনেক কম ছিল।

এপাচি আর টি আর -১৬০ সিসির মোটরসাইকেল কিনতে পারায় আমি খুব খুশিই ছিলা। কিন্তু ৫-৬ দিন পরেই আমার মনটা একটু খারাপ হয়ে যায়। কারণ, মোটরসাইকেলটি আমি প্রথম যে দিন বেশি স্পিডে তুলি ঠিক সেই দিন একটি সমস্যা অনুভব করি। সমস্যাটি হলো বেশি স্পীডে চালালে মোটরসাইকেলটির মাথায় সামনে খুব অতিরিক্ত খারাপ ধরনের একটা শব্দ হতে শুরু করল। সব চেয়ে দুঃখ জনক বিষয় এই যে, সেই খারাপ শব্দটা আমাকে এখনো পিছু ছাড়ে নাই। এখন ধীর গতিতে মোটরসাইকেলটি চালালেও সেই খারাপ শব্দটা হতেই থাকে। এটা আমার কাছে খুবই বিরক্তিকর মনে হয়।

TVS-Apache-RTR-160-user-review-by-Tipu-Brakes

মোটরসাইকেল কিনার ১৫ দিনের মাথায় আমি সমস্যাটি নিয়ে সার্ভিসিং সেন্টারে (খান মোটরস, পুঠিয়া) যাই। তারা আমাকে দেখে ভাল ব্যবহার করে এবং অতিথি আপ্যায়নেও কমতি রাখে নাই বিন্দু মাত্র। এরপর আমি আমার মোটরসাইকেল এর সমস্যাটি তাদেরকে বলি। তারা সাথে সাথে তাদের অন্যান্য কাজগুলো ফেলে আমার কাজটি আগে করে দেয়। সার্ভিসিং করার পরে সেই শব্দটা আর করে না। কিন্তু দুই দিন পরে আবার সেই একই সমস্যা দেখা দেয়। আমি পুনরায় সার্ভিসিং সেন্টারে যাই, তারা আবারো সমস্যাটি মেরামত করে দেয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত এই সমস্যাটি আমাকে পিছু ছাড়ে নাই। মোটরসাইকেল এর মাথা থেকে আগত খারাপ ধরনের শব্দটি আমাকে খুবই অতিষ্ঠ করে তুলেছে। এভাবেই তিন মাস কাটিয়ে দিলাম। তিন মাসে মোটরসাইকেলটি প্রায় ৩,০০০ কিমি চালিয়েছি কোন প্রকার দূর্ঘটনা ছাড়াই।

মোটরসাইকেলটির ডিজাইন খুব ভাল। এর বিল্ড কোয়ালিটি আমার কাছে মজবুত মনে হয়েছে। এছাড়া মোটরসাইকেলটির ইঞ্জিন খুব শক্তিশালী এবং এর পারফরমেন্স খুবই ভাল। মোটরসাইকেল চালানোর সময় আমি ইঞ্জিনের শব্দটা লক্ষ্য করি, ইঞ্জিনের শব্দটা আমার ভাল লেগেছে। আমার মোটরসাইকেলের ইঞ্জিন পারফরমেন্স ভাল দেখে আমার বন্ধু সুমনও এই মোটরসাইকেলটি কিনেছে। মোটরসাইকেলটির ইঞ্জিন শক্তিশালী হওয়াতে দ্রুত ও দীর্ঘ যাতায়াত করা যায়।

আমি মাইলেজ কখনো মেপে দেখিনি। যখনই তেল শেষ হয়ে যায়, তখনই আমি তেল পাম্প থেকে ট্যাংকার পুরো ভর্তি করে নিই। আমার মাইলেজ নিয়ে কোন প্রকারের অভিযোগ নেই।

আমি সর্বোচ্চ এক দিন ১০০ কিমি পথ ঘুরে বেড়িয়েছি। নাটোর, পুঠিয়া, বানেশ্বর, রাজশাহী ইত্যাদি জায়গাতে গিয়েছি। এই মোটরসাইকেলটি দীর্ঘ যাতায়াত করলে আমার কোন সমস্যা হয় না। তবে বেশী স্পীডে (৯০) মোটরসাইকেল এর মাথা কাপে (বিরক্তিকর শব্দটি তো আছেই)। আমি সর্বোচ্চ ১০৪ গতি তুলেছি। মোটরসাইকেলটি সিটিং পজিশন আগে একটু শক্ত অনুভব করলেও এখন আমি অনেক আরামের সাথে সিটে বসে দীর্ঘক্ষণ যাতায়াত করতে পারি। এছাড়া হ্যান্ডেলবারটি আমাকে ভাল অনুভূতি এনে দেয়। বাইকটির সুইচ গুলো অনেক ভাল, যা ব্যবহারে আমার কোন বিরক্তি আসে না। আমি অনেক দিন রাতে মোটরসাইকেল চালিয়েছি। আমি দেখেছি রাতে হেড লাইট থেকে পর্যাপ্ত পরিমানে হয়। বিশেষ করে মোটরসাইকেল স্ট্রাটিং এর সাথে আলো কম-বাড়া করাতে আমি একটু বেশিই খুশি। অনেক বাইকে দেখেছি হেড লাইটের আলো এক ভাবে জ্বলেই থাকে, কমানো বাড়ানো যায় না। এটাকে আমি সমস্যা মনে করি। কিন্তু এই দিক থেকে আমার মোটরসাইকেলে এমনটা হয় না, আলো কমা বাড়া করে। কন্ট্রোলের ক্ষেত্রে ব্রেক ভাল, সামনের চাকায় ডিস্ক ব্রেকটি আমার খুব পছন্দের। কিন্তু চাকার ট্যায়ার ও গ্রিপ ভাল না হওয়ায় স্লিপ করে। বিশেষ করে একটু ভেজা রাস্তা হলে খুব বেশি স্লিপ করে। তবে মোটরসাইকেলটির সাসপেনশনটি অসাধারণ, কেননা মোটরসাইকেলটি খারাপ রাস্তাতে চালালেও খুব বেশি ঝাঁকুনি লাগে না। স্টার্টের সময় বাইকটির সেল্ফ খুব ভাল কাজ করে এবং লুকিং গ্লাস থেকে পিছনের রাস্তা পরিষ্কার দেখা যায়।

হঠাৎ করে এত কম দামে এমন ভাল ডিজাইনের একটি মোটরসাইকেল পাবো তা কখনো ভাবি নাই। মোটরসাইকেলটি ইঞ্জিন পারফরমেন্স বিবেচনা করে দাম আমার কাছে সঠিক বলে মনে হয়েছে।

ভাল দিকঃ ১/ ডিজাইন খুব সুন্দর, ২/ মাইলেজ ভাল, ৩/ ইঞ্জিন পারফরমেন্স অনেক ভাল, ৪/ সিটিং পজিশন ভাল, ৫/ সব কিছু বিবেচনায় দাম সঠিক আছে বলে মনে করি, ৬/ হ্যান্ডেলবারটি আরামদায়ক রাইডিং নিশ্চিত করে, ৭/ সাসপেনশন ভাল, ৮/ ব্রেক ভাল, ৯/ হেড লাইট ভাল, ১০/ সুইচগুলো অনেক সুন্দর।

খারাপ দিকঃ মোটরসাইকেল এর মাথার সামনে থেকে খুবই বিরক্তিকর শব্দ হয়, ২/ টায়ার ও টায়ারের গ্রিপ তেমন ভাল না, ৩/ বেশি গতিতে মোটরসাইকেল এর মাথা কাপে।

পরিশেষে কোম্পানির উদ্দেশ্যে আমি বলতে চাই, আমি যে বিরক্তিকর শব্দের সমস্যায় ভুগছি, ভবিষ্যতে এমন সমস্যাযুক্ত মোটরসাইকেল গুলো সঠিকভাবে সার্ভিসিং করে বাজারে ছাড়লে বিক্রয়ের হার অনেকাংশে বৃদ্ধি পাবে। কেননা দ্রুত যাতায়াতের জন্য এই মোটরসাইকেলটির ইঞ্জিন পারফরমেন্স চমৎকার। সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিদায় নিচ্ছি।






Rate This Review

Is this review helpful?

Rate count: 1
Ratings:
Rate 1
Rate 2
Rate 3
Rate 4
Rate 5


More reviews on TVS Apache RTR 160
    14 Reviews found
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ রিভিউ - মোসাররফ হোসেন
    2019-02-07
    আমার নাম মোসাররফ হসেন।আমি রাজশাহী জেলার ১৪নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা।আমি ছোট বেলা থেকেই বাইক প্রেমী ছিলাম।এখনো আছি।আমার বাইক চালানো শুরু হয় হোন্ডা কোম্পানির HS 100 CC বাইক থেকে।এটা আমার বাবার বাইক ছিল।আমি বারো বছর বয়সে প্রথম বাইক চালায়।বাবা আমাকে বাইক চালানো শেকায়।তারপর থেকেই আমি বাবার এবং আমার বন্ধুদের বা...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ রিভিউ - শরিফুল ইসলাম
    2018-12-25
    আমি আজকে সকলের উদ্দেশ্যে আমার মোটরসাইকেল বিষয়ে ব্যক্তিগত কিছু অভিজ্ঞতা তুলে ধরবো। সর্ব প্রথমে আমি আমার পরিচয় জানাচ্ছি। আমি মোঃ শরিফুল ইসলাম। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। আমার মোটরসাইকেলটির নাম হচ্ছে এপাচি আর টি আর ১৬০ সিসি। মোটরসাইকেলটি আমি ৩ মাস যাবত ব্যবহার করছি। দ্রুত যাতায়াতের জন্য এই মোটরসাইকেল...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ রিভিউ - পিয়ারুল খান
    2018-12-09
    শুরুতেই আমি আমার পরিচয় জানিয়ে শুরু করছি। আমি মোঃ পিয়ারুল খান। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। আমার মোটরসাইকেল এর নাম টি, ভি, এস, এপাচি আর টি আর ১৬০ সিসি। এই মোটরসাইকেলটি আমার ব্যক্তিগত যাতায়াতের জন্যই মূলত কিনেছি। বর্তমানে মোটরসাইকেল সবার কাছেই খুব জনপ্রিয় একটি বাহন। আমার কাছেও খুব জন প্রিয়। আমার স্বপ্ন ছি...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - মজনু
    2018-09-29
    আজ আমি আমার মোটরসাইকেল এর এক মাসের রাইডিং অভিজ্ঞতা সকলের সাথে শেয়ার করার জন্য হাজির হয়েছি। তাই প্রথমেই আমি আমার পরিচয় জানিয়ে শুরু করছি। আমি মোঃ মজনু। পেশায় আমি একজন চাকুরীজীবী। আমার মোটরসাইকেল এর নাম টি,ভি, এস, এপাচি আর টি আর ১৬০ সিসি। এই মোটরসাইকেলটি আমার চাকুরীর জন্য ও ব্যক্তিগত যাতায়াতের জন্য মূল...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - দুলাল হোসেন
    2018-09-22
    আমার পরিচয় আমি মোঃ দুলাল হোসেন। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। আমি গ্রামে বাস করি। গ্রামের মানুষ সব সময় চায় কম মাইলেজের সমৃদ্ধ মোটরসাইকেল। অর্থাৎ অল্প তেলে বেশি যাতায়াত করতে। সে দিক থেকে আমিও একজন গ্রামের মানুষ। কিন্তু আমি মাইলেজের চেয়ে বাইকের পারফরমেন্সকে বেশি প্রাধান্য দিয়েছি। আমি মনে করি তেল বেশি খর...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - শামীম হোসেন
    2018-09-14
    আমার অনেক দিনের স্বপ্ন ছিল বড় মোটরসাইকেল কিনার। মোটরসাইকেল এর মাধ্যমে অল্প সময়ে দ্রুত যাতায়াত করা যায়। বিপদে আপদের সময়ও এটি সাহায্যকারী বাহন হিসেবে কাজ করে। আমি মোটরসাইকেল এর মাধ্যমে আমার সকল প্রকার যাতায়াত করতে পছন্দ করি। আমার পরিচয় আমি মোঃ শামীম হোসেন। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। আমার মোটরসাইকেল এ...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - সুমন আলী
    2018-07-24
    মোটরসাইকেল বাংলাদেশে একটি জনপ্রিয় বাহন হিসেবে পরিচিত। এটির মাধ্যমে অতি অল্প সময়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি দেওয়া সম্ভব। জীবনে চলার পথে মোটরসাইকেল অনেক কাজে লাগে। বিপদে আপদেও সাহায্যকারী বাহন হিসেবে কাজ করে। আমি মোঃ সুমন আলী। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। ব্যবসার কাজের জন্য ও আমার ব্যক্তিগত প্রয়োজনের উদ্দেশ্যেই আ...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - সজিব আহমেদ
    2018-06-25
    বাইক চালানো শিখেছিলাম অন্যের সিজি ১২৫ সিসি বাইক দিয়ে। আমার বাইক চালানোর নেশা শুরু হয় তখন থেকে যখন থেকে আমি সাইকেল চালানো শিখি। যেহেতু গ্রামে বসবাস করি তাই বিভিন্ন সময়ে সাইকেল নিয়েই আগে বেশি চলাচল করতাম। দুই চাকার সাইকেল নিয়ে আমি মাইলকে মাইল পথ পাড়ি দিয়েছি। যখন একটু বড় হলাম তখন মনটা মোটরসাইকেলের দিকে...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ মোটরসাইকেল রিভিউ - টিপু
    2018-06-18
    আমাদের নিত্য দিনের প্রয়োজনে এবং দ্রুত চলাচল করার জন্য মোটরসাইকেল একটি সহজলভ্য বাহন। এটি নিয়ে যাতায়াত করা অনেক সহজ। খুব অল্প সময়ের মধ্যে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাওয়া যায়। এজন্য বাংলাদেশে এটি একটি খুব জনপ্রিয় বাহন হিসেবে সকলের কাছে পরিচিত। তবে অনেকেই অনেক বছর ধরে মোটরসাইকেল চালায়। কিন্তু আমার নিজ...
    English Bangla
  • সার্ভিস সেন্টার এর মান আরো উন্নত করা দরকার – টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ ব্যবহারকারী নয়ন
    2018-05-12
    আমার জীবনে বাইক চালানো শুরু হয় টিভিএস মেট্রো ১০০ সিসি দিয়ে। টিভিএস মেট্রো বাইকটি আমার প্রথম বাইক ছিলো এবং প্রথম বাইক হিসেবে বলতে গেলে সেটা আমার অনেক শখের বাইক ছিলো। বাইক চালানো শেখার পর আমার গ্রামের রাস্তা সহ বিভিন্ন রাস্তায় দাপিয়ে বেরিয়েছি । ১০০ সিসির বাইক ব্যবহার করতে করতে এক পর্যায়ে মনে হলো যে একট...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০সিসি মোটরসাইকেল রিভিউ -অনিক
    2018-05-07
    আমি মোঃ অনিক পেশায় চাকুরীজীবী। আমার বর্তমান ঠিকানা জয়রামপুর, পুঠিয়া, রাজশাহী। দুর্ভাগ্যক্রমে আমার এর আগে কোন বাইক ব্যবহার করা হয়নি । টিভিএস এপ্যাচি আরটিআর আমার প্রথম ব্যাক্তিগত বাইক। আমি যাতায়াত সুবিধাকে আরও উন্নত করার জন্য বাইকটি কিনেছি কারণ আমার অফিসটা বাসা থেকে একটু দূরে এবং আমাকে সব কিছু সময়ের ...
    English Bangla
  • ভাইব্রেশনটি পীড়াদায়ক – টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ ব্যবহারকারী নিয়াজ উদ্দীন
    2018-04-29
    খুব ছোট বেলা থেকেই বাইকের ওপর কেমন যেন একটা টান কাজ করত।রাস্তায় বাইক দেখলে তাকায়ে থাকতাম এবং ভাবতাম কবে নিজের একটি বাইক হবে।আমার বাইকের হাতে খড়ি হয় আমার বন্ধুর বাইক হিরো গ্লামারে তারপর থেকেই বাইক কেনার নেশা আরও বাড়তে থাকে।আমার খুব পছন্দের বাইক টিভিএস আপাচি আরটিআর।আমি ভেবে রেখেছিলাম কোন দিন যদি বাইক ...
    English Bangla
  • টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৫০সিসি মোটরসাইকেল শর্ট রাইড রিভিউ -হায়দার আলী
    2018-02-06
    ব্যবসায়ীক কাজ এবং সহজ যাতায়াত করার জন্য আমি দীর্ঘদিন ব্যবহার করেছি বাজাজ সিটি ১০০। বাজাজ সিটি ১০০ বাইকটি আমি অনেক দিন ব্যবহার করেছি এবং ব্যবহার করতে করতে এক পর্যায়ে ভাবলাম বাইকটা পরিবর্তন করা দরকার। আমার বাসা একটু গ্রাম অঞ্চলে তাই তেমন নামীদামী বাইক দেখতে পাওয়া যায় না তবে আমার এলাকার অনেকেই টিভিএস ...
    English Bangla
  • 2017-09-10
    বর্তমানে দুই চাকার বাহনগুলো সারা বিশ্বব্যাপী ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। জনপ্রিয়তার পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বাইকের মান। যে সকল কোম্পানীর বাইকগুলোর গুনে ও মানে বেশী ভাল সেসকল কোম্পানিগুলো বাজারে সফলতার সাথে ব্যবসা করে যাচ্ছে এবং গ্রাহকদের মাঝে আস্থা বজায় রাখছে। টিভিএস ঠিক তেমনি একটি নির্ভরযো...
    English Bangla



Filter
Brand
CC
Mileage
Price

Advance Search
Motorcycle Brands in Bangladesh

View more Brands