Hero বাইকে আকর্ষণীয় ডিসকাউন্ট/অফার/গিফট পেতে ক্লিক করুন
Search



Honda Livo 110 Feature Review
2017-08-25 Views: 20152

Honda Livo 110 Feature Review


honda-livo-feature-review


মোটরসাইকেলের চাহিদার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশের মোটরসাইকেল মার্কেট দিনে দিনে আরও প্রশস্ত হচ্ছে এবং খুব দ্রুততার সাথে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। গ্রাহকদের চাহিদা পুরন করা এবং গ্রাহকদের প্রয়োজনীয় কিছু বিষয়ের কথা মাথায় রেখে বিভিন্ন কোম্পনী গুলো বেশ ভাল মানে প্রোডাক্ট সরবরাহ করছে। তাদের মধ্যে জাপানিজ মটরসাইকেল ব্র্যান্ড হোন্ডা যেটা অনেক আগে থেকেই বিশ্বস্ত এবং নির্ভরযোগ্য একটি মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারক ব্র্যান্ড। হোন্ডা তাদের গ্রাহকদের কম দামে অনেক ভাল মানের প্রোডাক্ট সরবরাহ করে থাকে। সম্প্রতি হোন্ডা আমাদের লোকাল মার্কেটে তাদের নতুন একটি বাইক নিয়ে এসেছে এবং সেটা হল “হোন্ডা লিভো”। হোন্ডার এই বাইকটি ১১০ সিসি সেগমেন্টের এবং একটি কমিউটার বাইক হিসেবে স্টাইলিশ লুক এবং ভাল ফিচার রয়েছে।


এই বাইকটি তেমন একটা মাস্কুলার বাইক না এবং ১১০সিসির কমিউটার বাইক হিসেবে হবারও কথা নয়, কিন্তু বাইকটির বডি গ্রাফিক্স,স্টাইলিশ লুক এবং আধুনিক ফিচার সব মিলিয়ে বাইকটিকে অনেক সুন্দর করে তুলেছে। এই বাইকটির টার্গেটেড কাস্টমাররা হল যারা শহরে কিংবা গ্রামে একটু স্টাইলিশ কমিউটার বাইক নিতে চান,





বিশেষ করে যারা তেল খরচের ব্যাপারে অধিক সতর্ক তাদের জন্যই এই বাইকটি। চলুন দেখে আসি বাইকটিতে কি কি আধুনিক ফিচার রয়েছে যেগুলো একজন গ্রাহকের খুব সহজেই নজর কাড়বে।




honda-livo-feature-review-deign

ডিজাইন এবং লুক
বর্তমানে একটি বাইকের খুব সাধারণ একটি বিষয় হল বাইকের আউটলুক।বাইকের আউটলুক যত সুন্দর হবে বাইকটি ততবেশি গ্রাহকদের নজর কাড়বে। ১০০ সিসি বাইক গুলোর মধ্যে “হোন্ডা লিভো” তে বেশ সুন্দর এবং নতুন ডিজাইনের বডি প্যানেল লক্ষ্য করা যায়। ফুয়েল ট্যাংকারটি কার্ভ হওয়ায় দেখতে বেশ এগ্রেসিভ লাগে এবং হেডল্যাম্পের চার পাশের বিকিনি ফেয়ারিং মডেল বাইকটিকে এজ শেপ এনে দিয়েছে। ফুয়েল ট্যাংকার বাদে সমস্ত বাইকটি যেমন প্যানেল, হেডল্যাম্প, মিরর, এবং সাসপেনশনে ব্ল্যাক আউট থিম রয়েছে। আপরাইট হ্যান্ডেলবার, ফুট রেস্ট পজিশন এবং চওড়া সিটিং পজিশন বাইকটিকে বেশ আরামদায়ক করেছে। ৬ টি স্পক বিশিষ্ট এলয় হুইল, আধুনিক ডিজাইনের মাফলার এবং সামনের চাকায় ডিস্ক ব্রেক বাইকটির সৌন্দর্য আরও বৃদ্ধি করেছে পাশাপাশি বাইকটির সম্পূর্ণ ডিজাইনে পজিটিভ প্রভাব ফেলেছে।

ডাইমেনশন
এই বাইকটিতে বেশ ভাল ডাইমেনশন লক্ষ্য করা যায় এবং ডাইমেনশনের কারণে বাইকটির চেহারা আরও ফুটিয়ে তুলেছে। হোন্ডা তাদের এই বাইকটিতে ডাইমেনশন টাইপ বডি ফ্রেম ব্যবহার করা হয়েছে। বাইকটি লম্বায় 2020mm, চওড়ায় 746mm এবং উচ্চতায় 1099mm বডি ডাইমেনশন রয়েছে এর পাশাপাশি বাইকটির হুইলবেজ 1285mm, গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স 180mm এবং ভাল সিট হাইট পুরো বাইকটিকে উন্নত আকার এনে দিয়েছে। ৮.৫ লিটার ফুয়েল ট্যংকারের সাথে বাইকটির ওজন রয়েছে ১১১ কেজি। এই ধরনের বডি ডাইমেনশন এবং ওজন আশা করা যায় যে বাইকারকে খুব ভাম কন্ট্রোল এনে দিবে।





honda-livo-feature-review-engine

ইঞ্জিন এবং ট্রান্সমিশন
হোন্ডা তাদের ইঞ্জিন তৈরিতে আপোষহীন।তারা সর্বদা চেষ্টা করে যে গ্রাহকদের সাধ্যের মধ্যে ভাল মানের ইঞ্জিন সরবরাহ করা এবং ত্রুটি মুক্ত ইঞ্জিন তৈরি করা। “হোন্ডা লিভো” তে রয়েছে পাওয়ারফুল ১০৯ সিসির সিংগেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন যেটা ম্যাক্স পাওয়ার 8.2 BHP @ 7500 RMP এবং ম্যাক্স টর্ক 8.3 Nm @ 5500 RMP দিতে সক্ষম।এই ইঞ্জিন ভাল এসেলেরেশন এবং টপ স্পীড যেটা ৮০ কিমি প্রতি ঘন্টায় দিবে এছাড়াও HET প্রযুক্তির সাহায্যে ভাল মাইলেজ পাওয়া যাবে। ইঞ্জিনের কমপ্রেশন রেশিও হল 9.9:1 এবং ইঞ্জিন চালু করার জন্য রয়েছে ইলেকট্রিক এবং কিক স্টার্ট অপশন। বাইকটিতে ৪ টি ট্রান্সমিশন গিয়ার বক্স রয়েছে এবং সেগুলো সব সামনের দিকে ।





honda-livo-feature-review-meter

মিটার কনসোল এবং ইলেকট্রিক্যাল
হোন্ডা লিভোর মিটার কনসোল তেমন একটা আপডেট না তবে এনালগ মিটারে প্রয়োজনীয় সব কিছুই আছে। এটির মিটার কনসোল ১০০ বা ১১০ সিসি বাইকের মত। গ্রাহকদের জন্য মিটার কনসোলে থাকছে RPM indicator, Low Fuel Indicator, Fuel Guage, speedometer, fuel indicator ইত্যাদি অর্থাৎ একজন বাইকারের প্রয়োজনীয় সব কিছুই এর মিটার কনসোলে রয়েছে। মিটারটিতে ডিজিটাল ফিচার থাকলে বেশ আপডেটেড হত।


honda-livo-feature-review-headlight

ইলেকট্রিক সাইডের কথা বলতে গেলে বেশ আপডেটেড এবং স্টাইলিশ। 12V 3(MF) মেইন্টেনেন্স ফ্রী ব্যাটারি, সামনে হ্যালোজিন বাল্ব, এলিডি সাইড ইনডিকেটর, পাওয়ার ফুল টেল ল্যাম্প, ইলেকট্রিক স্টার্ট অপশন এছাড়াও পাস সুইচ,হাইবিম-লোবিম সুইচ বাইকটির ইলেকট্রিক্যাল সাইডে রয়েছে। সব কিছু মিলিয়ে ১১০ সিসির বাইক হিসেবে ফিচার গুলো বেশ সন্তোষজনক।

honda-livo-feature-review-tail-lamp


সাসপেনশন
“লিভো” সাসপেনশন অন্যান্য ১০০ সিসি সেগমেন্টের বাইকের মতই আছে। বাইকের সামনের দিকে রয়েছে টেলিস্কোপ সাসপেনশন এবং পেছনের দিকে রয়েছে স্প্রিং লোডেড হাইড্রলিক রেয়ার সাসপেনশন। বাইকটির রেয়ার সাসপেনশন ৫ টি ধাপে এডজাস্টেবল রয়েছে যেটা রাইডারকে বেশ কম্ফোরট দিবে।

টায়ার এবং ব্রেকিং
কমিউটার বাইক হিসেবে অন্যান্য ১১০ সিসির বাইকের মতই ব্রেকিং এবং টায়ার রয়েছে। এই বাইকটির সামনের এবং পেছনে চাকা তেমন চওড়া না যার ফলে বেশ ভাল মাইলেজ পাওয়া যায়। সামনের চাকার মেজারমেন্ট 80/100-18 এবং পেছনের চাকাতেও একই মেজারমেন্টের টায়ার ব্যবহার করা হয়েছে এবং সামনে পেছনে দুটি চাকাই টিউবলেস যেটি সাধারনত এই সেগমেন্টের বাইকে কমই দেখা যায়।

অন্যদিকে ব্রেকিং এর কথা বলতে গেলে বাইকটিতে ডিস্ক এবং ড্রাম দুটি ব্রেকিং সিস্টেম আছে। সামনের চাকার 240mm এর ডিস্ক ব্রেক এবং পেছনের চাকায় 130mm ড্রাম ব্রেক রয়েছে। আশা করা যায় যে এই ধরনের টায়ার এবং ব্রেকিং ভাল গ্রিপ এনে দিবে এবং রাইডার বেশ আরামের সাথে রাইড করতে সক্ষম হবে।



honda-livo-feature-review-seat

শেষ কথা
হোন্ডা সর্বদা চেষ্টা করে যে তাদের গ্রাহকদের হাতে ভাল মানের এবং আপডেট ফিচার সমৃদ্ধ বাইক তুলে দেওয়া এবং তারা ইঞ্জিন তৈরিতে কোন ঘাটতি রাখে না যার ফলে তারা এপর্যন্ত গ্রাহকদের মন জয় করেছে এবং গ্রাহকরা হোন্ডার প্রতি আস্থা রেখেছে। তারা সম্প্রতি ১১০ সিসি হোন্ডা লিভো বাজারে নিয়ে এসেছে। হোন্ডা লিভো বাজারে চারটি বিভিন্ন কালারে পাওয়া যাবে সেগুলো হল- Aathletic Blue Metallic, Pearl Amazing White, Imperial Red Metallic and Dark Black ।এছাড়াও বাইকটির দুটি মডেল রয়েছে একটি হল self-drum-alloy এবং আরেকটি হল self-disc-alloy। সুতরাং বাইকটির আউটলুক, ইঞ্জিন আউটপুট, এবং আধুনিক ফিচার সব কিছুই বেশ আপডেটেড। বিশেষ করে কমিউটার লাভার দের বাইকটি বেশী নজর কাড়বে। আশা করা যাচ্ছে যে ১১০ সিসির এই বাইকটি লোকাল মার্কেটে বেশ ভাল প্রভাব ফেলবে।
Rate This Review

Is this review helpful?

Rate count: 154
Ratings:
Rate 1
Rate 2
Rate 3
Rate 4
Rate 5


More reviews on Honda Livo Disc
  • হোন্ডা লিভো ৫০০০কিমি রাইডিং অভিজ্ঞতা মোটরসাইকেল রিভিউ - আজিম
    2020-01-12
    আমি যখন মনে মনে নির্ধারণ করি যে একটা বাইক কিনবো তখন থেকেই আমার সাধ্যের মধ্যে পছন্দের তালিকায় সবার উপরে ছিলো হোন্ডা লিভো ১১০ সিসি। কারণ এই বাইকটির বিষয়ে আমি কিছু বন্ধুদের থেকে ভাল পরামর্শ পেয়েছি এবং আমি বাইক কেনার সময় হোন্ডা লিভোকেই প্রাধান্য দিয়েছি। এই বাইকটি আমি ১০ মাস যাবত ব্যবহার করেছি এবং এযাবৎ প...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো মোটরসাইকেল রিভিউ - শিমুল হোসেন
    2019-08-13
    সবাইকে স্বাগত জানাচ্ছি আমি শিমুল হোসেন। হোন্ডা লিভো ১১০ সিসির বাইকটা কেনা হয়েছিলো মূলত শখের বসে। তবে আমি বিভিন্ন স্থানে যাতায়াতের জন্য একটি বাইকের প্রয়োজন অনুভব করি। সেজন্যেই ৫ মাস আগে হোন্ডা লিভো ১১০ সিসি কিনি। আমি বাইক নিয়ে ঘুরতে খুব ভালোবাসি যার ফলে বাইক আমাকে খুবই আকৃষ্ট করে। আমার চাহিদা ছিলো যে...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো মোটরসাইকেল রিভিউ - ইসতায়েক আহমেদ
    2019-02-16
    মোটরসাইকেল বাংলাদেশে একটি জনপ্রিয় বাহন। একটি মোটরসাইকেল থাকলে নিজের ইচ্ছা স্বাধীন যে কোন জায়গাতে যাতায়াত করা যায়। অন্য কোন যানবাহনের জন্য অপেক্ষা করে বসে থাকার প্রয়োজন হয় না। যে কোন কাজের যাতায়াতের জন্য মোটরসাইকেল এর ভূমিকা ব্যাপক। আমার নাম মোঃ ইসতায়েক আহম্মেদ। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। আমার মোটর...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো মোটরসাইকেল রিভিউ - আউলিয়া
    2018-12-25
    মোটরসাইকেল বাংলাদেশে একটি জনপ্রিয় বাহন। এটির মাধ্যমে অতি অল্প সময়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি দেওয়া সম্ভব। আমার পরিচয় আমি মোঃ আউলিয়া। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। ব্যবসার কাজের জন্য ও আমার ব্যক্তিগত প্রয়োজনের উদ্দেশ্যেই আমি মোটরসাইকেল কিনি। আমার মোটরসাইকেল এর নাম হোন্ডা লিভো ১১০ সিসি। এটা আমার জীবনের প্রথম বাইক। ...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো মোটরসাইকেল রিভিউ - রাফিউল ইসলাম রাসেল
    2018-11-20
    প্রথমেই আমি আমার পরিচয় জানাচ্ছি। আমি মোঃ রাফিউল ইসলাম রাসেল। পেশায় আমি একজন ব্যবসায়ী। আমার মোটরসাইকেল এর নাম হোন্ডা লিভো ১১০ সিসি। আমার ব্যবসায়ের কাজের জন্য মোটরসাইকেলটি খুব প্রয়োজন ছিল। আমি দীর্ঘ ১০ বছর সিংগাপুরে ছিলাম। সেখান থেকে ১ বছর আগে আমি বাংলাদেশে আসি। নিজের দেশে এসে ভাবলাম যে কোন একটি ব্য...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো মোটরসাইকেল রিভিউ - শান্ত
    2018-11-05
    আমার নাম মোঃ শান্ত। লেখাপড়ার পাশাপাশি আমি বাবার ব্যবসার কাজে সাহায্য করি। আমার মোটরসাইকেল এর নাম Honda Livo 110 CC. এই মোটরসাইকেলটি মূলত বাবার ব্যবসার কাজে এবং পারিবারিকভাবে যাতায়াতের জন্যই কেনা। এটি “মিঠুন হোন্ডা” বানেশ্বর বাজার, রাজশাহীর একটি শোরুম থেকে কেনা হয়েছে। মোটরসাইকেলটি আমি এবং আমার বাবা দু’জনেই...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো বনাম হোন্ডা ড্রিম নিও - কোনটি কিনবেন?
    2018-09-27
    হোন্ডা ড্রিম নিও এবং হোন্ডা লিভো দুটোই স্বনামধন্য ব্যান্ড হোন্ডার প্রডাক্ট। এই বাইক দুটির ইঞ্জিন ক্ষমতা, টায়ার ইত্যাদি বেশ কিছু বিষয় একে অপরের সাথে মিল রয়েছে কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে আবার অমিল রয়েছে যা এর পারফরমেন্সে ভিন্নতা নিয়ে আসবে এবং রাইডারকে এই দুইটা বাইক দুই ধরনের অনুভূতি দিবে। আমরা যদি বা...
    English Bangla
  • দামটা একটু বেশি - হোন্ডা লিভো ব্যবহারকারী রাফিদ আহমেদ
    2018-08-18
    আমার নাম রাফিদ আহমেদ, আমি একজন ছাত্র এবং রাজশাহী শহরের উপশহর এলাকার বাসিন্দা । এখানে আমি আমার পুরো পরিবার নিয়ে বাসকরি। আমি যখন এস এস সি পরীক্ষা দেই তখন বাবা মা কথা দিয়েছিলো যে ফলাফল ভালো হলে বাইক কিনে দিবে । যেই কথা সেই কাজ । ফলাফল আলহামদুলিল্লাহ্‌ এ + । তারপর অনেক ভেবে ঠিক করলাম যে হোন্ডা কোম্পানির ব...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো ১১০সিসি মোটরসাইকেল রিভিউ - মানিকুর রহমান
    2017-12-23
    আমি মোঃ মানিকুর রহমান। পেশায় একজন চাকুরিজীবি। বলতে গেলে হোন্ডা লিভো ১১০সিসি এটাই আমার জীবনের প্রথম বাইক। অনেকেই আছেন যে নিজের প্রয়োজনের জন্য আবার কেউ ঘোরাঘুরি ও স্টাইল করার জন্য। আমি মূলত আমার এই নতুন হোন্ডা লিভো ১১০ সিসি বাইকটি ব্যবহার করি নিজ বাসায় ছুটিতে আসলে একটু ঘোরাঘুরির জন্য। তবে বাইক চালান...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো ১১০সিসি মোটরসাইকেল রিভিউ - আওলিয়া সিদ্দিক
    2017-12-21
    বর্তমান বিশ্বের অন্যান্য দেশ গুলোর মত আমাদের দেশেও বাইকের ব্যবহার দিনকে দিন বেড়েই চলেছে। বাইক এখন মানুষের একটি অতি প্রয়োজনীয় বাহন হিসেবে দাড়িয়েছে যা, কোন নির্দিষ্ট স্থানে সঠিক সময়ে পৌঁছে দেবার একটি নির্ভরযোগ্য বাহন। এছাড়াও একেক জনের কাছে একেক রকম ভাবে বাইকের ব্যবহার হয়ে থাকে। কেউ তার নিজ প্রয়োজন...
    English Bangla
  • হোন্ডা লিভো মোটরসাইকেল রিভিউ - রাহী
    2017-10-28
    মোটরসাইকেলের নেশা ছোট থেকেই। আর তাই অনলাইনে কাজ করে নিজের হাতে যখন কিছু টাকা জমিয়ে কিনে ফেলি নিজের প্রথম বাইক টিভিএস এপাচী আরটিআর। এর বছর খানেক পরে কিনি ইয়ামাহা এফজেডএস এফআই এবং আরটিআর টি বিক্রি করে দেই। বাড়ী গ্রাম হওয়াতে এবং পড়াশোনা এবং কাজের জন্য শহরে থাকার কারনে একটি স্বল্প সিসির বাইকের দরকার পড়ে ...
    English Bangla
  • 2017-08-25
    মোটরসাইকেলের চাহিদার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশের মোটরসাইকেল মার্কেট দিনে দিনে আরও প্রশস্ত হচ্ছে এবং খুব দ্রুততার সাথে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। গ্রাহকদের চাহিদা পুরন করা এবং গ্রাহকদের প্রয়োজনীয় কিছু বিষয়ের কথা মাথায় রেখে বিভিন্ন কোম্পনী গুলো বেশ ভাল মানে প্রোডাক্ট সরবরাহ করছে। তাদের মধ্যে জাপানি...
    English Bangla



Filter
Brand
CC
Mileage
Price

Advance Search
Motorcycle Brands in Bangladesh

View more Brands