Search



UM Runner Renegade Sport Feature Review
2018-11-14 Views: 1449

ইউএম রেনেগেড স্পোর্ট ফীচার রিভিউ


UM-Runner-Renegade-Sport-Feature-Review


ইউএম রানার রেনেগেড স্পোর্ট, এই বাইকটি স্বদেশি স্বনামধন্য মোটরসাইকেল কোম্পনী রানার এবং আমেরিকান কোম্পানী ইউএম সম্মিলিতভাবে তৈরি করেছে। বাংলদেশে অন্তত রানার সম্পর্কে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেবার কিছু নেই। অন্যদিকে ইউএম ও সারাবিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় একটি মোটরসাইকেল প্রস্ততকারক কোম্পানী। এই দুই কোম্পানী সম্মিলিতভাবে বাংলাদেশের রাইডার ও বাইক লাভাদের জন্য তৈরি করছে স্টাইলিশ, আধুনিক ফিচারস ইত্যাদি সব কিছু তাদের বাইকের সাথে দিচ্ছে। বাংলাদেশী বাইক প্রেমিদের টার্গেট করে





তারা সব ক্যাটাগরির বাইক বাজারে নিয়ে আসছে। তাদের মধ্যে একটি হচ্ছে ক্রুজার ক্যাটাগরি আর এই বাইকে অর্থাৎ রেনেগেড স্পোর্ট বাইকটিতে ক্রুজারের বৈশিষ্ট্য লক্ষ্য করা যায়। আর ভালোভাবে লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে এটি স্পোর্টস ক্রুজার যার জন্য হয়তো নামকরণ করা হয়েছে ইউএম রানার রেনেগেড স্পোর্ট। আজকে আমরা রেনেগেড স্পোর্ট বাইকের কিছু ফিচারস নিয়ে আলোচনা করবো।


UM-Runner-Renegade-Sport-Feature-Review-Fuel-Tank

ডিজাইন
গ্রাফিক্যাল ডিজাইনের দিকে তাকালে মনে হবে যে তারা তাদের নিপুণতার পরিচয় দিয়েছে। কমলা এবং কালো দুইটি রঙকে বিশেষভাবে ফুটিয়ে তুলেছে। এছাড়া কমলা উইন্ডশিট, মোটা চাকা, সিটিং পজিশন ইত্যাদি সব কিছু মিলিয়ে বাইকটির ডিজাইন বেশ ভালো। যেহেতু ক্রুজার ক্যাটাগরির বাইক তাই এর থেকে বেশি ডিজাইন করলে ক্রুজারের বৈশিষ্ট্য হারাবে।

ডাইমেনশন
একটি বাইকের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিকগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে ডাইমেনশন। এই ডাইমেনশন আপনাকে বলে দিবে বাইকটির ব্যালেন্স কেমন হবে, বাইকটির কোন কোন রাস্তায় চলার জন্য উত্তম ইত্যাদি। ইউএম রানার রেনেগেড বাইকটির ডাইমেনশন রয়েছে লম্বায় ২২২০ মিমি, চওড়ায় ৮২০ মিমি এবং উচ্চতায় ১৩৫০ মিমি। এদিকে বাইকের গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স রয়েছে ১৬০ মিমি, হুইলবেজ ১৫৫০ মিমি এবং সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে এর সুবিশাল ফুয়েল ট্যাংকার যেখানে ১৮ লিটার ফুয়েল ধারণ করতে পারে। বাইকটিতে রয়েছে ডাইমন্ড বডি ফ্রেম এবং সব মিলিয়ে বাইকের ওজন রয়েছে প্রায় ১৫৯ কেজি। ডাইমেনশনের দিক দিয়ে বাইকটি বেশ ভালোই মনে হয়েছে কিন্তু ডাইমেনশন ভালো দিলেও একে সাপোর্ট দেওয়ার জন্য দরকার হয় ভালো ইঞ্জিন শক্তি, ব্রেকিং, সাসপেনশন, টায়ার। চলুন নিচের অংশে দেখি বাইটিতে কি ধরনের ইঞ্জিন, টায়ার, সাসপেনশন এবং ব্রেকিং ব্যবহার করা হয়েছে।


UM-Runner-Renegade-Sport-Feature-Review-Engine

ইঞ্জিন
ইউএম রানার রেনেগেড স্পোর্ট বাইকটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ১৪৯ সিসির সিংগেল সিলিন্ডার,৪ স্ট্রোক ইঞ্জিন যা দিয়ে ম্যাক্স পাওয়ার ১৪.৫ বিএইচপি ৯৫০০ আরপিএম এবং ম্যাক্স টর্ক ১২ এনএম @ ৮০০০ আরপিএম ম্যাক্স টর্ক উৎপাদন করতে পারে। ইঞ্জিনে তারা একটি বিশেষ ফিচারস ব্যবহার করেছে সেটা হল লিকুয়িড কুল্ড । এই লিকুয়িড কুলিং সিস্টেমের ফলে ইঞ্জিন থেকে ভালো সাপোর্ট পাওয়া যাবে কিন্তু বাইকের বডি গঠন, ওজন এগুলো দিক বিবেচনা করলে ইঞ্জিনটা একটু কম শক্তিশালী বলে মনে হয়। কারণ ভারী ওজন ও গঠনের বাইকের জন্য দরকার অনেক বেশি ইঞ্জিন শক্তি যা এই বাইকের ক্ষেত্রে কম ব্যবহার করা হয়েছে। এদিকে ইঞ্জিন চালু করার জন্য রয়েছে ইলেকট্রিক এবং কিক স্টার্ট অপশন আর ৫ স্পীড ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশন গিয়ার বক্স।

টায়ার
টায়ারের দিক দিয়ে বাইকটির ভালো বৈশিষ্ট্য হচ্ছে যে সামনে এবং পেছনে উভয় দিকেই মোটা চাকা ব্যবহার করা হয়েছে এর ফলে রাস্তায় চলাচলের ক্ষেত্রে অনেক ভালো স্ট্যাবিলিটি পাওয়া যাবে। সামনের দিকে তারা ব্যবহার করেছে ১১০/৮০-১৭ সাইজের মোটা টায়ার এবং পেছনের দিকে ব্যবহার করেছে ১৪০/৮০-১৭ সাইজের টায়ার । বডির গঠন অনুযায়ী বাইকের টায়ারের সাইজ সঠিক বলে মনে হয়েছে।

সাসপেনশন
সাসপেনশন হিসেবে ইউএম রানার এই বাইকে ব্যবহার করা হয়েছে সামনের দিকে টেলিস্কোপিক এবং পেছনের দিকে ডাবল ডাম্পার।

ব্রেকিং
ভালো পারফরমেন্স এবং স্পীডকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রয়োজন ভালো ব্রেকিং সিস্টেম। আর বেশি ওজনের বাইকের ক্ষেত্রেও উন্নতমানের ব্রেকিং খুবই দরকারি। ইউ এম রানার তাদের এই বাইকের ব্রেকিং এ ব্যবহার করেছে সামনের দিকে ডিস্ক ব্রেক এবং পেছনের দিকে ড্রাম ব্রেক কিন্তু এই রকম দানবীয় ভারী ওজনের বাইকের জন্য পেছনে ড্রাম ব্রেক ব্যবহার করা যথেষ্ট না। তাই আরও ভালো ব্রেকিং ও নিয়ন্ত্রণ নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজন উভয় দিকেই ডিস্ক ব্রেক।


UM-Runner-Renegade-Sport-Feature-Review-Meter

ইলেকট্রিক্যাল ও মিটার প্যানেল
ইলেকট্রিক্যাল বিষয় সমূহে যে সব ফিচারস থাকা দরকার তার সবটাই এখানে ব্যবহার করা হয়েছে। এখানে ব্যবহার করা হয়েছে ১২ ভোল্টের ব্যটারি এবং ৫৫/৫৫ হ্যালোজিন হেডল্যাম্প। মিটারে প্যানেলে একজন রাইডারকে রাইডিং সহায়তার জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবটাই এখানে ব্যবহার করা আছে।

বাইকটির সকল বিষয় নিয়ে আলোচনা করার পর আমরা বলতে পারি যে বাংলাদেশের রাস্তার জন্য আশা করা যায় বাইকটি সকল রাইডারকে আরামদায়ক রাইড অনুভূতি দিবে, যেহেতু ক্রুজার বাইক তাই আরামের দিকে সবাই প্রাধান্য দিবে কিন্তু এর বডি গঠন অনুযায়ী ইঞ্জিন শক্তি, ব্রেকিং যথেষ্ট না বলে আমাদের কাছে মনে হয়েছে।
Rate This Review

Is this review helpful?

Rate count: 43
Ratings:
Rate 1
Rate 2
Rate 3
Rate 4
Rate 5


More reviews on UM Runner Renegade Sport
    1 Reviews found
  • ইউএম রেনেগেড স্পোর্ট ফীচার রিভিউ
    2018-11-14
    ইউএম রানার রেনেগেড স্পোর্ট, এই বাইকটি স্বদেশি স্বনামধন্য মোটরসাইকেল কোম্পনী রানার এবং আমেরিকান কোম্পানী ইউএম সম্মিলিতভাবে তৈরি করেছে। বাংলদেশে অন্তত রানার সম্পর্কে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেবার কিছু নেই। অন্যদিকে ইউএম ও সারাবিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় একটি মোটরসাইকেল প্রস্ততকারক কোম্পানী। এই দুই কোম্প...
    English Bangla



Filter
Brand
CC
Mileage
Price

Advance Search
Motorcycle Brands in Bangladesh

View more Brands