Search

শীতে বাইক চালানোর সময় নিজেকে উষ্ণ রাখার কৌশল

2020-11-10 Views: 2826

শীতে বাইক চালানোর সময় নিজেকে উষ্ণ রাখার কৌশল

1605011395_How-to-ride-warmly-in-winter.jpg
যেকোন পরিস্থিতিতে মোটরসাইকেল চালানো প্রকৃত মোটরসাইকেল প্রেমীদের জন্য রোমাঞ্চকর, এই কথা অস্বীকার করার কোনই উপায় নেই। আমরা যখনই শহর জীবনের আস্থিরতা থেকে মুক্তি পেতে চাই ঠিক তখনই আমরা ছোট কোনও ট্রিপে যাওয়ার বিষয়ে কল্পনা শুরু করি। তাহলে ভাবুন, আপনি এরকম অবস্থা থেকে বের হবার জন্য একদিন লং রাইডে যাবেন আপনার পছন্দের বাইকের সাথে। বের হবার আগে পরে দেখলেন, বাতাসের কোন ঝামেলা নেই, দিনটিও রোদেলা, তার উপর আবার শীতকাল! সুতরাং, আপনার মোটরসাইকেলটি নিয়ে যাত্রা করার জন্য আশা করা যায় আপনি আজকে ভাগ্যবান। তবে এমন কল্পনা কেবল তখনই সম্ভব হতে পারে যতক্ষণ না আবহাওয়া আপনাকে থামতে বাধ্য না করে। ধরে নিন যাত্রা শুরু করেও দিলেন, শীতকাল, যদি কোথাও মাঝখানে প্রবল শীত অনুভব করা শুরু করেন তাহলে আপনি কী করবেন? অন্যদিকে শীতে বাইক চালানো সময় অনেকক্ষেত্রে বৃষ্টিপাত একটি বড় সমস্যা। শীতকালেও এই সমস্যা ঘটে এবং যা রাইডারদের জন্য খুবই বেদনাদায়ক হতে পারে। ঠিক আছে, বাইকার হিসাবে আবহাওয়ার উপর আমাদের খুব সামান্য নিয়ন্ত্রণ রয়েছে, তবে রাইড করার সময় নিজেকে উষ্ণ রেখে শীতের উপরে আমরা নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারি এবং শীতে যে কোনও ধরণের বাজে পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত থাকতে পারি। কেবল বৃষ্টিপাতই নয়, অতিরিক্ত বাতাস প্রবাহ, কুয়াশাচ্ছন্ন পরিস্থিতি ইত্যাদি অনেক পরিস্থিতিতে রাইডারদের শীতকালে পরতে হয়। তাই আমাদের আজকের এই আয়োজন। এই লেখাটি নতুন চালকদের অবশ্যই সচেতনতা বাড়াতে অনেকটা কার্যকরী হবে বলে আসা করা যায়।নিম্নলিখিত টিপসগুলি শীতকালে এমনকি যেকোনঠান্ডা আবহাওয়াতে মোটরসাইকেল যাত্রায় চালকদের উষ্ণ থাকতে সহায়তা করবে বলে আসা করা যায়। যা নিজেকে সুস্থ রাখতে খুবই জরূরী।

নিজেকে গরম রাখতে একাধিক কাপড়ের ব্যাবহার করুনঃ

আমরা যেকোন যাত্রা শুরু করার আগে থেকেই ধরে নিতে পারি না যে, রোদেলা দিন দেখে মোটরসাইকেল নিয়ে বের হয়ে যাব, সারাদিনই আবহাওয়া ভালো থাকবে। শীতকালে কিছু কিছু পরিস্থিতিকোন ধরনের বিজ্ঞপ্তি ছাড়াই চলে আসবে আপনার সামনে।যা আমরা ইতিমধ্যে শুরুতেই উল্লেখ করেছি। যদি সেই ধরণের পরিস্থিতি ঘটে তবে আমরা কী করতে পারি? আমাদের উচিৎ হবেসবচেয়ে খারাপ অবস্থার জন্য প্রস্তুত থাকা। এই ক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে যেহেতু শীতকাল, তাই যাত্রার শুরু থেকেই আপনার গরম কাপড়ের স্তর দিয়ে নিজেকে সঠিকভাবে ঢেকে বের হতে হবে। আপনি এই ভাবে যাত্রা শুরু করলে নিজেকে গরম রাখতে খুবই ভাল কাজ করবে এবং যখনই আপনি প্রচণ্ড গরম অনুভব করবেন আপনি সর্বদা কিছু কিছু করে কাপড় সরিয়ে ফেলতে পারবেন। সঠিক কাপড়ের স্তর আপনাকে শীতল হয়ে ওঠা থেকে আপনার সুরক্ষা নিশ্চিত করবে।

নিজেকে শুকনো রাখাটাও নিজেকে গরমরাখার একটি ভালো উপায়ঃ

দুর্ঘটনাক্রমে ভিজে যাওয়ার মতো বিরক্তিকর কিছুই হতে পারে না। এর অর্থ এই নয় যে আমরা কখনই সাঁতার কাটিনা, বা গোসল করি না। সেগুলি পরিকল্পনাসহ করে থাকি। একটু ভাবুন, আপনি শীতে বা মেঘলা দিনে আপনার পচ্ছন্দের বাইকের সাথে বেড়িয়ে পরলেন। ঠিক তখনই অবাঞ্ছিত বৃষ্টি চলে আসে এবং আপনার আশ্রয় নেওয়ার কোন জায়গা নেই। সেই সময় কেবল সেই অশান্তিকর পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়া ছাড়া আপনার কাছে কোন উপায় থাকবে না। শীতকালে রাইডের সময় ভেজা কেবল বৃষ্টিপাতের কারণে ঘটে না, ঘন কুয়াশাচ্ছন্ন পরিস্থিতিতে যাত্রার কারণেও শরীর অনেকটা ভিজে যায়। ফলস্বরূপ, আপনি এমন অবস্থায় থাকলেশীতল আবহাওয়া এবং আর্দ্রতা উভয়ই আপনার হাড়ে পর্যন্ত ঠাণ্ডা অনুভব করার জন্য যথেষ্ট। এই ক্ষত্রে আপনি কীভাবে মোটরসাইকেলে নিজেকে শুকনো রাখবেন? বর্তমানে রাইডারদের জন্য রেইন স্যুট পাওয়া যায়। যা উন্নত মানের এবং অনেক আরামদায়ক। এগুলো বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয়েছে এমন সময়ে আপনাকে স্বাছ্যন্দে রাইডিং অভিজ্ঞতা দেবার জন্য। শীতে মোটরসাইকেলের যাত্রায় নিজেকে গরম রাখতে অবশ্যইএই স্যুট ব্যাবহার করুন। বৃষ্টি এবং শীত দুটো থেকেই নিজেকে শুষ্ক রাখুন। কমপক্ষে নিজের সাথে নিয়ে বের হবেন, যেন কাজে আসে।

সঠিক পোশাক নির্বাচন করুন:

শীতকালে বা ঠান্ডা আবহাওয়াতে চলার জন্য ভারি জামাকাপড় গুরুত্বপূর্ণ, তবে এটি উপযুক্ত হতে হবে। শীতে মোটরসাইকেল যাত্রায় সময় নিজেকে গরম রাখার জন্য, আপনাকে মূলত বাতাসের হাত থেকে বাচতে হবে এবং তা থেকে শরীরকে দূরে রাখতে হবে। আপনি যদি উপযুক্ত পোশাক পরে থাকেন তবে আপনি এটি করতে পারেন। আপনি টি-শার্ট, বা অন্যান্য সাধারণ ফ্যাব্রিক পোশাকের একাধিক কাপড় পরে রাইড করতে পারেন, তবে এগুলো আপনাকে খুব বেশি সাহায্য করবে না। সেক্ষত্রেবাইকারদের জন্য এই উদ্দেশ্যে তৈরি করা পোশাকের কোনও ঘাটতি নেই। উষ্ণ থাকার জন্য এবং ঠান্ডা আটকানোর জন্য ভালো মানের লেদারবা এই ধরণের ম্যাটেরিয়াল প্রয়োজনীয়। শীত এবং বাতাস থেকে নিজেকে রক্ষা করার জন্য চামড়ার জ্যাকেট, গ্লোভস এবং জুতাপ্রয়োজনীয় পোশাক। সুতরাং আপনাকে এই ধরনের কাপড় বেছে নিতে হবে। এছাড়াও, ডেনিম এবং বুটজুতো যা স্পেশিয়ালি বাইক রাইডিং এর জন্যই ডিজাইন করা হয়েছে তা পেয়ে গেলে সেগুলোই হচ্ছে আপনার সঙ্গি। আপনার গলা হেলমেটের বাইরে থাকে সেখানকার জন্য আপনি স্কার্ফ বেছে নিতে পারেন, গ্লোভস এবং ফুল ফেসহেলমেট অবশ্যই রাখবেন।

1605011485_How-to-ride-warmly-in-winter-2.jpg
আপনার বাইকের জন্য উইন্ডশীল্ড ব্যবহার করার চেষ্টা করুন:

বেশিরভাগ সময় আমরা কোনও ধরণের উইন্ডশীল্ড ছাড়াই বাইক কিনি। কারণ এটি তেমন স্মার্ট দেখায় না। আমরা যখন দীর্ঘ ভ্রমণে যাই তখন উইন্ডশীল্ডটি কার্যকর হতে পারে। ধরে নিন আপনি শীতকালে কিলোমিটারের পর কিলোমিটার রাস্তা চলার উদ্দ্যেশ্য নিয়ে বের হয়েছেন, সেই সময় বাতাস আপনার মুখের সাথে এসে বাড়ি ক্ষাচ্ছে। এর ফলে আপানার খুব দ্রুত ঠান্ডা ধরতে পারে এবং এটি আপনার ক্লান্তির জন্যও যথেষ্ট। সুতরাং, যদি আপনি শীতল আবহাওয়ায় ভাল রাইডিং অভিজ্ঞতা পেতে চান তবে আপনার বাইকের জন্য একটি উইন্ডশীল্ড রাখা ভাল। আপনি বেশিরভাগ বাইকের জন্য আধুনিক উইন্ডশীল্ডগুলি সহজেই খুঁজে পেতে পারেন। যখন প্রয়োজন মনে করবেন না খুলে রাখতে পারেন। শীতে মোটরসাইকেল যাত্রায় উইন্ডশিল্ডগুলি গরম থাকার একটি ভাল উপায়, তার কারন তা সামনে থেকে আসা বাতাসকে অনেকটা আটকিয়ে দিতে সক্ষম।

বাতাস শরীরের ভেতরে প্রবেশ থেকে আটকাতে হবেঃ

শীতকালীন যাত্রায় আপনার কী ধরণের পোশাক পরা উচিৎ সে সম্পর্কে আমরা আলোচনা করেছি। গ্লোভস, জ্যাকেট এবং অন্যান্য যেগুলি আমরা এখানে উল্লেখ করেছি সেগুলি শুধুমাত্র সাথে থাকলেই হবে না। এগুলো পরার পর বাতাস আপনার শরীরে প্রবেশ থেকেআটকাতে হবে।আপনার অবশ্যই নিশ্চিত হতে হবে যে আপনার সমস্ত কাপড় খুব ভালোভাবে শরীরের সাথে আটকে আছে, যাতে বাতাস ভিতরে অথবা বাইরে যেতে না পারে। ওভারল্যাপ আছে এমন পোশাক পরুন, যাতে আপনার কোন অংশবাতাস লাগার মত কোন ফাঁক না থাকে। চেন খুলে জ্যাকেট পরে থাকা বা হেলমেটের কাচ তুলে রাখা এগুলো বাতাস শরীরে লাগার অন্যতম উদাহরন।

আপনার যাত্রা শুরুর আগে আবহাওয়া দেখে নেয়া ভালোঃ

অনেক সময় শীতে বাইক নিয়ে বেড়িয়ে যেতে হয় আমাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে। অন্যদিকে, রিয়েল বাইক লাভার অনেকেই আছেন যারা শীতের রাইডিং পছন্দ করে। তবে যেটাই হোক আমরা আবহাওয়ার বিরুদ্ধে যেতে পারি না, আমাদের সাথে যেতে হবে। অতএব, আপনার যাত্রা শুরু করার আগে আবহাওয়া যাচাই বাছাই করা ভাল। উদাহরণস্বরূপ, যদি আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলে যে আজ বৃষ্টিপাতের একটি সম্ভাবনা রয়েছে এবং আপনিও মোটরসাইকেল নিয়ে সেদিন বাইরে যাচ্ছেন তবে অবশ্যই আপনি বিভিন্ন ধরণের সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন। হতাশাজনকভাবে ভেজা এবং ঠান্ডা লাগিয়ে বাড়ি ফেরার একটি ভালো কারন হতে পারে এইদিনের যাত্রা। সুতরাং, রাইডশুরু করার আগে আপনাকে আবহাওয়ার পূর্বাভাসটি দেখে তারপর যাত্রা করতে হবে। এটি আপনার জন্য নিরাপদ এবং আপনি নিজেকে গরম রাখতে পারবেন যাত্রাকালীন।কোনকিছু না দেখেই যদি বেড়িয়ে পড়েন, তাহলে অন্তত বজ্রপাত বা তুষারপাত সম্পর্কে সচেতন হবেন।

শীত, বা গ্রীষ্ম যাই হোক না কেন যারা রাইডিং পছন্দ করেন তারা নিজেদের আটকে রাখবে না। তবে শীতকালে পথ চলা তুলনামূলকভাবে কঠিন এবং আমাদের শরীর গরম রাখার জন্য এবং রাইডিংয়ের জন্য ফিট থাকতে বিভিন্ন ধরণের সুরক্ষা প্রয়োজন। উপরের প্রদত্ত টিপসগুলি শীতকালে রাইডিংয়ের জন্য সহায়ক হতে পারে, এছাড়াও আরও অনেক টিপস রয়েছে যা আপনাকে শীতকালে বা ঠান্ডা আবহাওয়ার মধ্যে চলাচল করতে সাহায্য করবে। শীতকালে নিজেকে গরম রাখার সর্বচ্চ চেষ্টা করুন, ফলাফল আপনার জনই ভাল হবে।





Rate This Tips

Is this tips helpful?

Rate count: 2
Ratings:
Rate 1
Rate 2
Rate 3
Rate 4
Rate 5

Bike Tips

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনার পিছনে থাকা কিছু কারণসূমহ
2021-02-28

আমরা আমাদের যাতায়াতের সুবিধার্থে প্রতিদিনই মোটরসাইকেল ব্যবহার করছি। মোটরসাইকেল আমাদের পথচলাকে করেছে স্বাধীন এবং স্বাছন্দ্যময়। আমাদের দেশের রাস্তাগুলোর প্রশস্ততা,নিয়ম কানুন ইত্যাদির সঠিক বাস্তবায়ন নেই যার ফলে প্রতিনিয়ত ঘটে চলেছে সড়ক দুর্ঘটনা। এই সড়ক দুর্ঘটনার প্রধান শিকার বাইকাররা। নিজের ভুল ...

Bangla English
বাইকারদের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জের দর্শনীয় স্থান সূমহ
2021-02-24

আমের রাজধানী হিসেবে খ্যাত চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলে অবস্থিত। বরেন্দ্র ও দিয়াড় অঞ্চল হিসেবেও পরিচিত এই জেলা। এখানকার আম পৃথিবী বিখ্যাত। এছাড়াও এটি বিভিন্ন ঐতিহাসিক নিদর্শন ও প্রত্নসম্পদে সমৃদ্ধ একটি জেলা। প্রাচীন বাংলার রাজধানী গৌড়ের রাজধানী হিসেবে শিবগঞ্জ উপজেলায় বিভি...

Bangla English
বাইকারদের জন্য রাজশাহীর দর্শনীও স্থান সূমহ
2020-12-05

গ্রিন সিটি, সিল্ক সিটি, এডুকেশন সিটি হিসেবে পরিচিত এই নগরী অবস্থিত বাংলাদেশের উওর-পশ্চিম অঞ্চলে। আমের জন্য বিখ্যাত এই নগরীর রয়েছে অনেক প্রাচীন ইতিহাস। রাজশাহী বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন ও ঐত্যিহবাহী মহানগরী এবং উত্তরবঙ্গের সবচেয়ে বড় শহর। অনেক ভ্রমন পিপাসু রয়েছেন যারা রাজশাহীতে এসে রাজশাহীর দর্শনী...

Bangla English
শীতে বাইক চালানোর সময় নিজেকে উষ্ণ রাখার কৌশল
2020-11-10

যেকোন পরিস্থিতিতে মোটরসাইকেল চালানো প্রকৃত মোটরসাইকেল প্রেমীদের জন্য রোমাঞ্চকর, এই কথা অস্বীকার করার কোনই উপায় নেই। আমরা যখনই শহর জীবনের আস্থিরতা থেকে মুক্তি পেতে চাই ঠিক তখনই আমরা ছোট কোনও ট্রিপে যাওয়ার বিষয়ে কল্পনা শুরু করি। তাহলে ভাবুন, আপনি এরকম অবস্থা থেকে বের হবার জন্য একদিন লং রাইডে যাবেন ...

Bangla English
নিরাপদ ব্রেকিং এর জন্য আরএলপি(RLP)
2020-09-09

আরএলপি(RLP) অর্থ হচ্ছে "রেয়ার হুইল লিফট-অফ প্রোটেকশন"। মূলত এটি এবিএস, সিবিএস, ব্রেকিং ইত্যাদির মতো একটি সেফটি ফিচার। যেসকল বাইকে সিঙ্গেল চ্যানেল এবিএস, বা সিবিএস রয়েছে, এই ফিচারটি তাদের সাথে মিলিত হয়ে আরও ভাল পারফর্মেন্স এবং আরও ভাল সেফটি সরবরাহ করে থাকে। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা আরএলপি সম্পর্কে কিছু আল...

Bangla English